নতুন চেহারার বার্সেলোনার জয়ে শুরু লীগ

ক্যাম্প ন্যুতে লা লিগার যাত্রার শুরুটা ছিলো বিষাদ আক্রান্ত। সন্ত্রাসী হামলায় নিহতদের সমবেদনা জানাতে নামের বদলে বার্সেলোনা ধারন করে মাঠে নেমেছিলো দলটি। নানা সমস্যা এখনো জড়িয়ে আছে বার্সেলোনাকে। ট্রান্সফার উইন্ডো শেষের পথে, এখনো প্রত্যাশামাফিক দল গুছাতে পারেনি কাতালান দলটি। একটা প্রজন্মের পর আরেকটা প্রজন্মের দায়িত্ব নেয়ার এই পালাবাদলের কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে দল।

গতরাতে  বার্সেলোনা খেলতে নেমেছিলো অন্য রূপের এক দল নিয়ে। এই দলে জাভি নেই, ইনিয়েস্তা নেই, পিকে নেই, দানি আলভেস নেই, সুয়ারেজ নেই, নেইমার নেই। আছে নতুন দিনের স্বপ্ন সারথীরা। শুরু থেকেই ছিলেন ডেউলফেও, সার্জিও রবার্তো, সেমেদো, উমতিতিরা। ডেনিস সুয়ারেজ ও আশার আলো হয়েছেন শেষ বিকেলে।

নতুন চেহারার বার্সেলোনা খেলতে চেয়েছে তাদের নিজস্ব ফুটবলটাই। নিজেদের দর্শনে স্থির থাকার চেষ্টা টা লক্ষ্যনীয় ছিলো। এই ম্যাচে বার্সেলোনা অগোছালো ভাবটা কাটিয়ে উঠার চেষ্টা করেছে। তাতে পুরোপুরি সফল না হলেও, পেরেছে এর্নেস্টো ভালভার্দের দল।

২০১৭-১৮ মৌসুম বার্সেলোনা শুরু করেছে ঘরের মাঠে ২-০ গোলের জয় দিয়ে। রিয়াল বেটিসের বিপক্ষের এই ম্যাচে প্রথম গোলটা এসেছে ডেউলোফেউর শট থেকে প্রতিপক্ষের ডিফেন্ডারের শরীর ছুয়ে যাওয়া আত্বঘাতী গোল থেকে। তবে ক্ষানিক বাদেই গোল করলেন পুরো ম্যাচে দারুণ খেলা সার্জিও রবার্তো।

নজর কাড়তে সমর্থ না হলেও লেফট উইঙ্গার লা মাসিয়া থেকে উঠে আসা ডেউলফেউ উতরে যেতে সমর্থ হয়েছেন। নতুন দলে আসা পর্তুগীজ রাইট ব্যাক ও খেলেছেন দারুন। লিওনেল মেসি ছিলেন নিজের সেরা ছন্দে, গোল পাননি। তবে ম্যাচ নিয়ন্ত্রনের পাশাপাশি দুরূহ সব গোলের প্রচেষ্টা চালিয়ে ভক্তদের উদ্ধেলিত করতে তিনি পেরেছেন ঠিকই। অসাধারণ গোল হতে পারতো, এমন তিনটি শট গোলপোষ্টে লেগে ফিরেছে।

সব মিলিয়ে, নতুন যাত্রাটা শুভই বলা যায়।  অন্ধকারের মাঝে আশার আলোর মতই সূচনা করেছে এর্নেস্টো ভালভার্দের দল।